মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ০৩:১৮ পূর্বাহ্ন

‘আইএমএফের ঋণ না-ও মিলতে পারে’

ডেইলী বেঙ্গল গেজেট রিপোর্ট
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ৯ অক্টোবর, ২০২৩ ৬:৪৩ pm

ধারাবাহিকভাবে দেশের রিজার্ভ কমতে থাকলে আইএমএফের সহায়তা না-ও মিলতে পারে বলে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন অর্থনীতিবিদ রেহমান সোবহান। তিনি বলেন, রিজার্ভ ধারাবাহিকভাবে কমতে থাকলে বিপদ হতে পারে। যদি তা ১০ বিলিয়ন ডলারে নেমে আসে, তখন আইএমএফের সহায়তা না-ও মিলতে পারে।

 

সোমবার (৯ অক্টোবর) ইকোনমিক রিপোর্টার্স ফোরামের (ইআরএফ) এক অনুষ্ঠানে সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগের (সিপিডি) চেয়ারম্যান রেহমান সোবহান এ কথা বলেন। অনুষ্ঠানের শিরোনাম ছিল ‘অধ্যাপক রেহমান সোবহানের সঙ্গে সংলাপ’।

 

রেহমান সোবহান বলেন, ধারাবাহিকভাবে বাংলাদেশের রিজার্ভ কমে যাওয়ার সঙ্গে শ্রীলঙ্কার মিল রয়েছে। যদিও বাংলাদেশের অর্থনীতি নিঃসন্দেহে শ্রীলঙ্কার চেয়ে ভালো অবস্থায় রয়েছে। কারণ, আমাদের বড় একটি রপ্তানি খাত আছে। সেই সঙ্গে আছে রেমিট্যান্স বা প্রবাসী আয়, যা শ্রীলঙ্কার চেয়ে অনেক বেশি। সে কারণে বিশ্বাস করি না, বাংলাদেশের সামগ্রিক অর্থনৈতিক পরিস্থিতি কখনো শ্রীলঙ্কার মতো হতে পারে।

 

তিনি বলেন, দেশে রেমিট্যান্স বা প্রবাসী আয় কমে যাচ্ছে, তার মানে এই নয় যে দেশে প্রবাসী আয় আসা বাস্তবে কমে গেছে। প্রবাসী আয় আনুষ্ঠানিক পথে না এসে অনানুষ্ঠানিক পথে আসছে, যার মূল মাধ্যম হুন্ডি। অর্থাৎ রিজার্ভ বাংলাদেশ ব্যাংকে জমা না হয়ে হুন্ডিতে জমা হচ্ছে, যা বাংলাদেশের বাইরে জমা হচ্ছে। যারা বিদেশে অর্থ পাচার করেন, তাদের জন্য এটা সুবিধাজনক হয়েছে।

 

দেশের এই শীর্ষস্থানীয় অর্থনীতিবিদ বলেন, দেশের আর্থিক খাতের সংস্কৃতিতে বড় পরিবর্তন এসেছে। ঋণ নেওয়ার পর ফেরত না দেওয়াটা নিয়মে পরিণত হয়েছে। যারা এসব করছেন, তারা নিজেদের বড় রাজনীতিক হিসেবে পরিচয় দিচ্ছেন।

 

আরো

© All rights reserved © 2023-2024 dailybengalgazette

Developer Design Host BD