রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ০৪:৩৪ পূর্বাহ্ন

আত্মহত্যা প্রসঙ্গে মুখ খুললেন তানজিন তিশা

ডেইলী বেঙ্গল গেজেট রিপোর্ট
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ১৬ নভেম্বর, ২০২৩ ৬:৩৬ pm

হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরলেন অভিনেত্রী তানজিন তিশা। অভিনেত্রীর সহকারী আল-আমিন এটি নিশ্চিত করেন। তিশার আত্মহত্যা প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, যে ঘটনা ছড়িয়েছে, তেমন কিছুই নয়। সেগুলো মিথ্যা।

কেন হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়েছিল, জানতে চাইলে আল-আমিন বলেন, হঠাৎ আপার ফুড পয়জনিংয়ের সমস্যা দেখা দেয়। যে কারণে হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়।

এদিকে আজ বৃহস্পতিবার (১৬ নভেম্বর) ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেন তানজিন তিশা।

স্ট্যাটাসে তিশা লেখেন, আজকে কিছু ভুল নিউজ দেখতে পেলাম এবং সে বিষয়টি আমি সবাইকে পরিষ্কার করতে চাই। আসল বিষয়টি হলো, গতরাতে আমার ফুড পয়জনিং-এর পরে কিছু ব্যাপারে আমার খারাপ অবস্থা ছিল তাই আমি একটা স্লিপিং পিল খাই এবং তার সাইডইফেক্ট হিসেবে আমার বমি হয় এবং হাসপাতালে গিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা নেই। আমি এখন সম্পূর্ণ সুস্থ।

তিনি আরও লেখেন, আরও একটু বিষয় বলতে চাই, আমার বাবা গত দুইবছর আগে বাবা মারা যায় এবং বিষয়টি আমাকে এতোটাই শক্ত করে যে এই ধরনের পদক্ষেপ আমি এরকম কোন মানুষ অথবা যেকোন মানুষের জন্যই জীবনে নেব না।

তিশা বলেন, সবাইকে একটি বিষয় বলতে চাই যেটা আগেও বলেছি, আর্টিস্টদের একটা ব্যক্তিগত জীবন আছে। সেই ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে আপনারা যদি কথা বলেন তাতে আমার বিন্দুমাত্র আপত্তি নেই। কিন্তু আমি একটি বিষয় বলতে চাই, ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে আমারও হয়তো কখনো কিছু বলার থাকতে পারে। যদি থাকে এবং যারা আমার ক্ষতি করার চেষ্টা করছে মিডিয়ার কিছু মানুষ তাদের প্রত্যেকের নাম উল্লেখ করে স্পেশালি যারা যারা আমার ক্ষতি করেছেন অথবা করার চেষ্টা করছেন তাদের প্রত্যেকটা মানুষের নাম ম্যানশন করে অতি শিগগির আমার শুভাকাঙ্ক্ষীদের জন্য সাংবাদিক ভাই-বোনদের সাথে বসে প্রেস কনফারেন্স করবো। ধন্যবাদ।

গত রাতে অসুস্থ হয়ে পড়েন তানজিন তিশা। সঙ্গে সঙ্গেই তাকে নিয়ে যাওয়া হয় ঢাকা মেডিকেলে। সেখান থেকে রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয় তাকে। রাত থেকে দুপুর পর্যন্ত সেখানেই চিকিৎসা দেওয়া হয়।

এদিকে বেশ কিছু অনলাইন গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, অভিনেত্রী তানজিন তিশার সঙ্গে আরেক অভিনেতা মুশফিক আর ফারহানের সম্পর্ক প্রায় দেড় বছর ধরে। তারা বেশ কিছু নাটকে একসঙ্গে অভিনয় করেন। এভাবেই তাদের মধ্যে। পরে তাদের মধ্যে মনোমালিন্য হয়।

আরো

© All rights reserved © 2023-2024 dailybengalgazette

Developer Design Host BD