রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ০৬:৪৩ পূর্বাহ্ন

খোলা বইয়ের মতো অধরা

ডেইলী বেঙ্গল গেজেট রিপোর্ট
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ১৯ ডিসেম্বর, ২০২৩ ৫:৩০ pm

চলতি সময়ের গ্ল্যামারাস চিত্রনায়িকা অধরা খান। সিনেপাড়ার আলোচিত এ নায়িকার বছরের অধিকাংশ সময় কয়েকটি সিনেমার শুটিংয়ে কেটেছে। ইতোমধ্যে তিনি সৈয়দ অহিদুজ্জামান ডায়মন্ড পরিচালিত ‘দখিন দুয়ার’ সিনেমার কাজ শেষ করেছেন। এর আগে গেল জুনে মুক্তি পাওয়া ছবি ‘সুলতানপুর’-এর প্রচারণায় কেটেছে দারুণ কিছু সময়।

বর্তমান ব্যস্ততা প্রসঙ্গে অভিনেত্রী জানালেন, অপূর্ব রানার ‘দ্য রাইটার’ ছবির একটি গানের শুটিং বাকি আছে। এ ছাড়া আসছে ফেব্রুয়ারিতে ‘দখিন দুয়ার’ মুক্তির সম্ভাবনা রয়েছে। আলোচ্য ছবিগুলোয় দর্শক অধরাকে কোন রূপে পাবে? প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ‘দখিন দুয়ার’ ছবিতে আমি গ্রামের শান্তশিষ্ট মেয়ে। যে জীবনে ভালো কিছু করতে চায়। পড়াশোনায় মনোযোগী। মানুষের জন্য কিছু করার চেষ্টা করে। অন্যদিকে ‘দ্য রাইটার’ ছবিতে একজন লেখকের স্ত্রীর চরিত্রে অভিনয় করেছি। দুটো চরিত্রেরই আলাদা শেড আছে। কাজ করে ভালো লেগেছে।

কাজের বাইরেও অধরাকে নিয়ে চর্চা চলে নেটাগরিকদের মাঝে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অধরার প্রকাশ করা স্থিরচিত্র নিয়ে দর্শকের আগ্রহের শেষ নেই। তার আবেদনময়ী ছবির নিচে মন্তব্যের ঘরে যা টের পাওয়া যায়।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে উষ্ণতা ছড়ানো প্রসঙ্গে অধরা জানান, ‘সিনেমায় কাজ করতে এসেছি দর্শকের ভালোবাসা পেতে। সিনেমার মতো সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ করা ছবিতেও দর্শকের আগ্রহ দেখতে পেলে ভালো লাগে। উঠতি একজন চিত্রনায়িকার স্থিরচিত্র দেখে দর্শক আলোচনা করছে, পত্রপত্রিকায় প্রতিবেদন প্রকাশ হচ্ছে- এসব আমি ইতিবাচকভাবে নিচ্ছি।’

শুধু ছবি নয়, অধরার বিদেশ ভ্রমণ নিয়েও দর্শকের জানার আগ্রহ ব্যাপক। শোবিজের অনেকেই দেশের বাইরে যান। তাদের নিয়ে ততটা চর্চা হয় না যতটা হয় অধরাকে নিয়ে। বিষয়টি প্রসঙ্গে তার ভাষ্য, ‘দর্শক আমাকে ভালোবাসে। তারা জানতে চায় কবে কোথায় যাচ্ছি। মানুষ যাদের ভালোবাসে তাদের খোঁজখবর রাখে। শোবিজের সহকর্মী, সাংবাদিক- তারাও আমাকে পছন্দ করে। তাই তো আমার ট্যুরগুলো নিয়ে লেখালেখি হয়। ব্যক্তিগতভাবে আমি খোলা বই। কয়েকটি দেশে আমাদের পারিবারিক ব্যবসা আছে। ছোটবেলা থেকেই বিভিন্ন দেশে ট্যুর করছি। বলা যায়, বিভিন্ন দেশে যাওয়া আমার রুটিন ওয়ার্ক।’

বছরের শেষ ভাগে অধরা গিয়েছিলেন কলকাতা। অধরা বলেন, ‘আমার ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে যাচ্ছিল। তাই কলকাতা থেকে ঘুরে এলাম। পোর্ট ফোলিওর কাজ করেছি। মূলত ব্যক্তিগত কাজেই যাওয়া। তবে সিনেমায় কাজের ব্যাপারেও কথাবার্তা হয়েছে।’

সিনে তারকাদের কেউ কেউ ওয়েব প্ল্যাটফর্মে নাম লিখিয়েছেন। অধরাকে কবে এ মাধ্যমে পাওয়া যাবে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘ওটিটিতে কাজের প্রস্তাব নিয়মিত পাচ্ছি। চাইলেই ওয়েব সিরিজ বা ওয়েব ফিল্মে কাজ করে ফেলা যায়। এখন তো ইউটিউবের কাজকেও ওটিটির কাজ মনে করে অনেকে! আমি চট করে ওটিটিতে কাজ করতে ইচ্ছুক নই। চিত্রনাট্য ও প্ল্যাটফর্ম আকর্ষণীয় না হলে কাজের মান বজায় থাকবে না। তাই ভেবেচিন্তে এ মাধ্যমে পা ফেলব।’

অধরা যোগ করলেন, ‘আসলে একজন শিল্পীর কোন কাজটি করা উচিত কোনটি উচিত নয় তা বোঝা প্রয়োজন। আমি ছোটাছুটি কম করছি। আমার মাঝে তাড়াহুড়ো নেই।’ প্রসঙ্গত অধরার মুক্তি পাওয়া ছবিগুলো হলো- ইস্পাহানি আরিফ জাহানের ‘নায়ক’, শাহীন সুমনের ‘মাতাল’ ও ‘পাগলের মতো ভালোবাসি’ এবং সৈকত নাসিরের ‘সুলতানপুর’।

আরো

© All rights reserved © 2023-2024 dailybengalgazette

Developer Design Host BD