বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১২:০৮ পূর্বাহ্ন

প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ফল পাল্টানোর চেষ্টার অভিযোগ ট্রাম্পের বিরুদ্ধে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ১৫ আগস্ট, ২০২৩ ১১:১৬ pm

২০২০ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্প জর্জিয়া অঙ্গরাজ্যের ফলাফল বদলে দেওয়ার চেষ্টা করেছিলেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

সোমবার (১৪ আগস্ট) জর্জিয়ার ফুলটন কাউন্টি ডিস্ট্রিক্ট অ্যাটর্নি ফানি উইলিস ওই অভিযোগ করেন। এতে ট্রাম্প ও তার ১৮ সহযোগীকে অভিযুক্ত করা হয়েছে।

এ নিয়ে চতুর্থবার ফৌজদারি অভিযোগের মুখে পড়লেন দেশটির সাবেক এই প্রেসিডেন্ট।

যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে তিনিই প্রথম কোনো সাবেক রাষ্ট্রপ্রধান, যিনি ফৌজদারি মামলা মোকাবেলা করছেন।

২০২০ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জর্জিয়া অঙ্গরাজ্যে ডেমোক্র্যাট প্রতিদ্বন্দ্বী জো বাইডেনের কাছে হেরে যাওয়ার পর ফল উল্টে দেওয়ার চেষ্টা করেছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। এমন অভিযোগেই অভিযুক্ত হয়েছেন তিনি।

এই মামলায় মোট ১১টি অভিযোগ আনা হয়েছে। এর মধ্যে ভোট জালিয়াতিও রয়েছে। অভিযুক্তের মধ্যে রয়েছেন ট্রাম্পের সময়কার হোয়াইট হাউসের চিফ অব স্টাফ মার্ক মিডোস ও তার আইনজীবী রুডি গিউলিয়ানি।

এই অভিযোগটি সাধারণত সংগঠিত অপরাধী দলগুলোর সদস্যদের অভিযুক্ত করতে ব্যবহার করা হয় আর এর সর্বোচ্চ সাজা ২০ বছরের কারাদণ্ড।

তবে ট্রাম্প প্রতিবারের মতো এবারেও এ অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

ট্রাম্প বলেন, “ডেমোক্রেট ফ্যানি উইলস তার বিরুদ্ধে যে তদন্ত চালিয়েছেন তা রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।”

এর আগে রাষ্ট্রীয় গোপনীয়তা লঙ্ঘন, পর্নস্টার স্টর্মি ড্যানিয়েলসকে টাকা দিয়ে মুখ বন্ধ করা ও ক্যাপিটাল দাঙ্গায় উসকানি দেওয়ার ফৌজদারি অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। যেগুলোর মামলা বর্তমানে বিচারাধীন।

এত কিছুর পরও যুক্তরাষ্ট্রের আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান দলের মনোনয়ন দৌড়ে এগিয়েই আছেন ট্রাম্প। তার বিরুদ্ধে যদি অভিযোগ প্রমাণও হয়, যুক্তরাষ্ট্রের সংবিধান অনুযায়ী তিনি নির্বাচন করতে পারবেন।

সে ক্ষেত্রে নির্বাচনে জয়লাভ করলে নিজেকে ক্ষমা করে দেওয়ার সাংবিধানিক অধিকার পেয়ে যাবেন ট্রাম্প।

আরো

© All rights reserved © 2023-2024 dailybengalgazette

Developer Design Host BD