মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ০৩:২৫ পূর্বাহ্ন

বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জের মুখে পোশাক শিল্পকে টিকিয়ে রাখতে এনবিআরের সহযোগিতা চায় বিজিএমইএ

ডেইলী বেঙ্গল গেজেট রিপোর্ট
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ১১ অক্টোবর, ২০২৩ ৪:০৭ pm

বাংলাদেশের পোশাক শিল্পের টেকসই কৌশলগত রূপকল্প ২০৩০ বাস্তবায়নে শিল্পে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) সহযোগিতা প্রদান অত্যাবশ্যক হবে।

এই রূপকল্পের লক্ষ্য হলো, পোশাক শিল্পের প্রতিযোগিতা সক্ষমতা বৃদ্ধি করা এবং একই সাথে টেকসই প্রবৃদ্ধি নিশ্চিত করা।

বাংলাদেশ পোশাক প্রস্তুতকারক ও রপ্তানিকারক সমিতি (বিজিএমইএ) এর সভাপতি ফারুক হাসান বুধবার (১১ অক্টোবর) ঢাকায় এনবিআর কার্যালয়ে এনবিআর চেয়ারম্যান আবু হেনা মোঃ রহমাতুল মুনিমের সঙ্গে বৈঠকে এসব কথা বলেন।

বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিলেন এফবিসিসিআই এর সহ-সভাপতি ও বিজিএমইএর সাবেক পরিচালক মোঃ মুনির হোসেন।
তারা পোশাক শিল্পের বর্তমান পরিস্থিতি, বৈশ্বিক বাণিজ্য প্রবণতা এবং বাংলাদেশের অর্থনীতি ও শিল্পের ওপর এই প্রবণতার প্রভাব নিয়ে আলোচনা করেন।

বৈঠকে বিজিএমইএ সভাপতি ফারুক হাসান পোশাক শিল্পের রূপকল্প বাস্তবায়নে এনবিআর এর সহযোগিতার গুরুত্ব তুলে ধরেন।
তিনি বলেন, বৈশ্বিক বাজারে শিল্পের প্রতিযোগী সক্ষমতা ধরে রাখার জন্য সহজীকরণকৃত এবং দ্রুততর ব্যবসায়িক প্রক্রিয়া এবং পরিষেবাগুলো অপরিহার্য।

ফারুক হাসান ফ্যাশন শিল্পের পরিবর্তনশীল প্রবণতাগুলোর ওপর আলোকপাত করে বলেন, ফ্যাশন শিল্পে বিশেষ করে হাই-এন্ড পণ্য ডেলিভারির ক্ষেত্রে স্বল্পতম লিড টাইমের চাহিদা ক্রমবর্ধমানভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে।

পোশাক শিল্পকে এসব চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে বিশ্ব বাজারে প্রতিযোগীতামূলক রাখার জন্য বিজিএমইএ সভাপতি ফারুক হাসান এনবিআর এর দ্রুত ও ঝামেলামুক্ত সেবা প্রদানের ওপর জোর দেন।

তিনি আরও বলেন, বিশেষ করে এলডিসি গ্র্যাজুয়েশনের পরবর্তী সময়ে শিল্পের রপ্তানি প্রতিযোগী সক্ষমতা এবং প্রবৃদ্ধির গতি বজায় রাখার জন্য এনবিআর এর প্রয়োজনীয় সহায়তা অপরিহার্য।

তিনি বলেন, এলডিসি গ্র্যাজুয়েশন বাংলাদেশের জন্য সুযোগ এবং চ্যালেঞ্জ, বিশেষ করে শুল্ক কাঠামোর পরিবর্তনের প্রেক্ষাপটে নতুন ধরনের বাস্তবতা নিয়ে আসছে।

তিনি আরও বলেন, এই এলডিসি-পরবর্তী সময়ে শিল্পের প্রতিযোগী সক্ষমতা ধরে রাখতে বাংলাদেশকে অবশ্যই কৌশলগত পদক্ষেপ নিতে হবে।

পোশাক রপ্তানিকারকদের বর্তমান চ্যালেঞ্জগুলো সমাধানের লক্ষ্য নিয়ে বিজিএমইএ সভাপতি ফারুক হাসান এনবিআর এর সদস্য (কাস্টমস: পলিসি অ্যান্ড আইসিটি) মোঃ মাসুদ সাদিকের সাথেও একটি বৈঠক করেন।

আলোচনায় বিজিএমইএ সভাপতি শুল্ক, বন্ড এবং কর সম্পর্কিত বিদ্যমান সমস্যাগুলোর উল্লেখ করে সমস্যাগুলো সমাধানের জন্য এনবিআরের সহযোগিতা চান।

একই দিনে বিজিএমইএ এর সহ-সভাপতি শহিদউল্লাহ আজিমের নেতৃত্বে বিজিএমইএ এর আরেকটি প্রতিনিধিদল এনবিআর এর সদস্য (কাস্টমস: এক্সপোর্ট, বন্ড অ্যান্ড আইটি) হোসেন আহমদের সঙ্গে পৃথকভাবে একটি বৈঠক করেন।
বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিলেন বিজিএমইএ এর পরিচালক আসিফ আশরাফ।

আলোচনার মূল বিষয়গুলো ছিলো পোশাক শিল্পের বর্তমান অবস্থা, শিল্পের রপ্তানি লক্ষ্য এবং পারফরমেন্স এবং পরিবর্তনশীল ব্যবসায়িক পটভূমির সাথে সংগতি রেখে শিল্পে নীতি সহায়তা প্রদাণের প্রয়োজনীয়তা।

প্রতিনিধিদলটি শিল্পের প্রতিযোগী সক্ষমতা বাড়ানোর জন্য শুল্ক, বন্ড এবং কর প্রক্রিয়াগুলো স্ট্রিমলাইন করার জন্য এনবিআরের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

আরো

© All rights reserved © 2023-2024 dailybengalgazette

Developer Design Host BD