শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ০৭:০২ অপরাহ্ন

ভারতের সামনে মামুলি লক্ষ্য ছুড়ল পাকিস্তান

ডেইলী বেঙ্গল গেজেট রিপোর্ট
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ১৪ অক্টোবর, ২০২৩ ৬:২৭ pm

চলমান বিশ্বকাপের সবচেয়ে হাইভোল্টেজ ম্যাচ বসেছে ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় স্টেডিয়ামে। আহমেদাবাদে চলা দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর মহারণে ভারতীয় বোলারদের সামনে দাঁড়াতেই পারেনি পাকিস্তানের ব্যাটাররা। ব্যাটিং ব্যর্থতায় ১৯১ রানেই গুটিয়ে গেছে ১৯৯২ এর বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। অধিনায়ক বাবর আজম ছাড়া ৫০ রানের কোটা পূরণ করতে পারেনি কোনো পাক ব্যটার। এতে শক্তিশালী ভারতের ১৯২ লক্ষ্য দাঁড়িয়েছে রানের।

শনিবার (১৪ অক্টোবর) আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদী স্টেডিয়াম বাংলাদেশ সময় দুপুর ২টা ৩০ মিনিটে মাঠে গড়ায় ম্যাচটি। এদিন টস জিতে পাকিস্তানকে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানায় ভারতীয় অধিনায়ক রোহিত শর্মা।

আহমেদাবাদের ব্যাটিং সহায়ক উইকেটে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো করেছিলেন পাকিস্তানের দুই ওপেনার। প্রথম ৮ ওভারে কোনো উইকেট পড়তে দেননি তারা। তবে ইনিংসের অষ্টম ওভারের শেষ বলে আব্দুল্লাহ শফিককে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলেন মোহাম্মদ সিরাজ। ক্রিজ ছাড়ার আগে ২৪ বলে ৩ বাউন্ডারিতে ২০ রান করেন আগের ম্যাচে সেঞ্চুরি হাঁকানো শফিক।

এরপর বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি আরেক ওপেনার ইমাম উল হকও। গত দুই ম্যাচেও রান পাননি ইমাম। তবে আজ শুরুটা দারুণ করেছিলেন। কিন্তু উইকেটে থিতু হওয়ার আগেই হার্দিকের অফ স্টাম্পের বাইরের বলে ব্যাট ছুঁয়ে উইকেটের পেছনে ধরা পড়েন।

দলীয় ৭৩ রানে দুই ওপেনারকে হারানোর পর দলের ভার কাঁধে নেন অধিনায়ক বাবর আজম ও উইকেটরক্ষক ব্যাটাসম্যান মোহাম্মদ রিজওয়ান। দুই জন মিলে দারুণ শুরু করেন। জুটি গড়েন ৮২ রানেরও। ৫৮ বলে ৭ চারে ব্যক্তিগত অর্ধশতক তুলে নেন পাক কাপ্তান। যা চলমান বিশ্বকাপে তার প্রথম অর্ধশতক। আগের দুই ম্যাচে খুব একটা রান পাননি তিনি। অর্ধশতকের পরই অবশ্য সাজঘরে ফিরতে হয় বাবরকে। মোহাম্মদ সিরাজের বল বুঝে ওঠার আগেই বোল্ড হয়ে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন তিনি।

বাবরের বিদায়ের পর ধস নামে পাকিস্তানের ব্যাটিং লাইনআপে। ইনিংসের ৩৩তম ওভারের দ্বিতীয় বলটি লেগ স্টাম্পের ওপর করেছিলেন কুলদীপ যাদব। টার্ন করে ভেতররের দিকে ঢুকা বলে লাইন মিস করেছেন সৌদ শাকিল। বল পায়ে আঘাত হানলে আম্পায়ার আউট দেননি। তবে রিভিউ নেনে রোহিত। তাতে দেখা যায় বল লেগ ও মিডল স্টাম্পে আঘাত হানতো। এতে মাত্র ৬ রানেই সাজঘরে ফিরতে হয় শাকিলকে।

তখনই মাঠে আসেন পাকিস্তানের মিডল অর্ডারের ভরসা ইফতিখার আহমেদ। কিন্তু তিনিও উইকেট বিলিয়ে আসেন কুলদীপকে। তিন বল মোকাবিলা করে ৪ রানকে চতুর্থ বলে লেগ স্টাম্পের বাইরের বলে সুইপ করতে গিয়ে ইনসাইড এডজে বোল্ড হয়েছেন। ৩৪তম ওভারের শেষ বলে অর্ধশতকের ঠিক এক রান আগেই বোল্ড হন শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে শতক করা মোহাম্মদ রিজওয়ান। ব্যক্তিগত ৪৯ রানে জাসপ্রিত বুমরাহরা বলে বোল্ড হন তিনি।

এক ওভার পর আক্রমণে ফিরে শাদাব খানকেও (২) বোল্ড করেন বুমরাহরা। একই সঙ্গে পাকিস্তানের ব্যাটিং লাইনআপের মেরুদন্ডও ভেঙে দেন এই ডানহাতি পেসার। এরপর আর দাঁড়াতেই পারেনি কেউই। বলার মতো স্কোর করতে পারেননি লোয়ার মিডল অর্ডারের কোনো ব্যাটার। মাত্র ৩৬ রান যোগ করতেই শেষের ৮ উইকেট হারিয়েছে বাবরের দল। শেষ পর্যন্ত ৪২.৫ ওভারে ১০ উইকেট হারিয়ে ১৯১ রান তুলে পাকিস্তান।

ভারতের পক্ষে যশপ্রীতি বুমরাহ, মোহাম্মদ সিরাজ, কুলদীপ যাদব, হার্দিক পান্ডিয়া ও রবীন্দ্র জাদেজা প্রত্যেকেই দুইটি করে উইকেট শিকার করেন।

আরো

© All rights reserved © 2023-2024 dailybengalgazette

Developer Design Host BD