রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ০৬:০৯ পূর্বাহ্ন

স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ডের সহযোগিতায় দেশের প্রথম কন্টিনিউয়াস পলিমারাইজেশন প্ল্যান্ট স্থাপন করছে মডার্ন সিনটেক্স

ডেইলী বেঙ্গল গেজেট রিপোর্ট
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৬ অক্টোবর, ২০২৩ ৮:১৪ pm

স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড বাংলাদেশ কন্টিনিউয়াস পলিমারাইজেশন প্ল্যান্ট স্থাপনের জন্য মডার্ন সিনটেক্স লিমিটেড-কে ৩৮ মিলিয়ন ইউরো’র একটি এক্সপোর্ট ক্রেডিট এজেন্সি (ইসিএ) ব্যাকড টার্ম লোন এবং ৪,৫০৫ মিলিয়ন (টাকা) কমার্শিয়াল বিডিটি সিন্ডিকেটেড টার্ম লোন-ভিত্তিক অর্থায়নের ব্যবস্থা করেছে। মডার্ন সিনটেক্স লিমিটেড-এর কন্টিনিউয়াস পলিমারাইজেশন প্ল্যান্ট হলো বাংলাদেশে ম্যান-মেইড ফাইবার প্রস্তুতকারী প্রথম পরিপুর্ণ উৎপাদন সুবিধা, যা দেশের তৈরি পোশাক (আরএমজি) সেক্টরে রপ্তানি বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

১৩১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বিনিয়োগে মডার্ন সিনটেক্স লিমিটেড-এর কন্টিনিউয়াস পলিমারাইজেশন প্ল্যান্ট পলিয়েস্টার স্টেপল ফাইবার (পিএসএফ), টেক্সটাইল গ্রেড পলিয়েস্টার চিপস (পেট চিপস), ড্র টেক্সচার্ড ইয়ার্ন (ডিটিওয়াই) এবং ফুল্লি ড্রন ইয়ার্নর (এফডিওয়াই) তৈরি করবে। এই পণ্যগুলো ব্যাকওয়ার্ড-লিংকেজের মাধ্যমে উত্পাদিত হবে, যা আরএমজি, টেক্সটাইল, ফুটওয়্যার এবং ভেহিকেল তৈরিসহ বিভিন্ন শিল্পে স্থানীয় চাহিদা মেটাতে সাহায্য করবে, যা বর্তমানে চীন, ইন্দোনেশিয়া, ভারত, তাইওয়ান, মালয়েশিয়া’র মতো বাজার থেকে আমদানির মাধ্যমে পূরণ করা হচ্ছে। নতুন মিন্টেড প্ল্যান্টটির বর্তমান বার্ষিক চাহিদার ৪৫% পিএসএফ, পেট চিপস এবং অন্যান্য টেক্সটাইলের পণ্যের চাহিদা পূরণের সম্ভাবনা রয়েছে। এই প্ল্যান্টটি চট্টগ্রামে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্প নগরে অবস্থিত এবং জার্মানি ভিত্তিক ওরলিকন-এর (বারমাগ) প্রযুক্তিগত সহায়তায় নির্মিত।

প্ল্যান্টে বাণিজ্যিক কার্যক্রম শুরুর উপলক্ষ্যে সম্প্রতি এক অনুষ্ঠানে একটি ক্রেস্ট হস্তান্তর হয়েছে। স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড বাংলাদেশ-এর সিইও নাসের এজাজ বিজয়; ম্যানেজিং ডিরেক্টর, হেড অব ক্লায়েন্ট কভারেজ, কর্পোরেট, কমার্শিয়াল অ্যান্ড ইনস্টিটিউশনাল ব্যাংকিং এনামুল হক; মডার্ন সিনটেক্স লিমিটেড-এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর ও চেয়ারম্যান আবু সুফিয়ান চৌধুরী সহ উভয় প্রতিষ্ঠানের অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

এ প্রসঙ্গে স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড বাংলাদেশ-এর সিইও নাসের এজাজ বিজয় বলেন, “বিশ্বব্যাপি তৈরি পোশাক খাতে ম্যান-মেইড ফেব্রিকের চাহিদা বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং এই ক্রমবর্ধমান বৈশ্বিক চাহিদা মেটাতে পোশাক রপ্তানিকারকদের সহযোগিতায় বাংলাদেশ কিছুটা পিছিয়ে আছে। এই সময়োপযোগী বিনিয়োগ আমদানিকৃত ম্যানমেড ফাইবার-এর (এমএমএফ) উপর নির্ভরশীলতা কমাবে, বৈদেশিক মুদ্রা ও পরিবহন খরচ সাশ্রয় করবে, দেশিয় তৈরি পোশাক খাতে উৎপাদন বৃদ্ধি করবে এবং টেকনিক্যাল টেক্সটাইলস, ফাংশনাল অ্যাপেরেল ও স্মার্ট টেক্সটাইলসের মতো হাই-ভ্যাল্যু-অ্যাডেড এমএমএফ পণ্যের রপ্তানি বৃদ্ধিতে সাহায্য করবে। বাংলাদেশে কন্টিনিউয়াস পলিমারাইজেশন প্ল্যান্ট স্থাপনে মডার্ন সিনটেক্স লিমিটেডের পাশে থাকতে পেরে আমরা গর্বিত এবং দেশের টেক্সটাইল ও তৈরি পোশাক খাতকে তরান্বিত করতে ভবিষ্যতেও তাদের সাথে কাজ করতে আশাবাদী।”

মডার্ন সিনটেক্স লিমিটেড-এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর ও চেয়ারম্যান আবু সুফিয়ান চৌধুরী বলেন, “স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড প্রথম থেকেই এমন বৃহত্তর প্রকল্পের জন্য প্রয়োজনীয় পণ্য ও কাঠামো প্রদানে সাহায্য করে আসছে। এই অর্থায়নের মাধ্যমে আমরা সময়মতো প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করতে এবং ২০২৪ সালের ফেব্রুয়ারির মধ্যে বাণিজ্যিক উৎপাদন শুরু করতে পারবো বলে আশা করছি, যার মাধ্যমে প্রতিবছর প্রায় ৬০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বৈদেশিক মুদ্রা সাশ্রয় করবে। এটি প্রায় ১,৫০০টি প্রত্যক্ষ কর্মসংস্থান তৈরি ও এমএমএফ শিল্পে ইতিবাচক অবদান রাখবে, যা বিশ্বব্যাপি সিন্থেটিক টেক্সটাইলের বর্ধিত চাহিদা ফলে ক্রমশ বৃদ্ধি পাবে বলে আমি আশাবাদী।”

স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক ইসিএ ব্যাকড-টার্ম ঋণ সুবিধার একক ঋণদাতা ছিল। ব্যাংক সকল স্টেকহোল্ডার, ঋণগ্রহীতা, গ্যারান্টার, অয়লার হার্মেস (ইসিএ) এবং সাপ্লাইয়ারদের এন্ড-টু-এন্ড স্ট্রাকচারিং ও অ্যারেঞ্জমেন্ট পরিষেবা দিয়ে থাকে। ব্যাংকের পণ্য দক্ষতা বাংলাদেশ-ভিত্তিক ক্লায়েন্টদের প্রকল্প অর্থায়নের জন্য জার্মান সরকারের সহায়তা, প্রতিযোগিতামূলক মূল্য এবং বর্ধিত মেয়াদ লাভের সুযোগ দিচ্ছে। ৮টি বাণিজ্যিক ব্যাংক এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠান যৌথভাবে কমার্শিয়াল বিডিটি সিন্ডিকেটেড-টার্ম ঋণ সুবিধায় অংশগ্রহণ করেছিল। উভয় সুবিধার জন্য বাধ্যতামূলক লিড অ্যারেঞ্জার, ফ্যাসিলিটি এজেন্ট এবং নিরাপত্তা এজেন্ট ছিল স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড।

দীর্ঘ ১১৮ বছরেরও বেশি সময় ধরে বাংলাদেশে নিরবচ্ছিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করা স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংকই দেশের একমাত্র বহুজাতিক ব্যাংক। ১৯৯৭ সাল থেকে স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংকের পুঁজিবাজার ইউনিট বিদ্যুৎ, টেলিযোগাযোগ, অবকাঠামো, খাদ্য ও পানীয়, টেক্সটাইল, পরিষেবা এবং অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ খাতে ৮.৩ বিলিয়ন সমপরিমাণ স্থানীয় এবং বিদেশী মুদ্রা সিন্ডিকেটকৃত লোন/ডেট সুবিধা প্রদান করেছে।

স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক জাতির কল্যাণে, অর্থনৈতিক বৈষম্য দূরীকরণে, এবং পরিবেশ রক্ষার মাধ্যমে দেশের বাণিজ্য ও উন্নয়ন যাত্রার দীর্ঘস্থায়ী গর্বিত অংশীদার। টেকসই ও সমতার আদর্শকে কেন্দ্রে রেখে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক ও সামাজিক উন্নয়নের জন্য স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড সর্বদা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

আরো

© All rights reserved © 2023-2024 dailybengalgazette

Developer Design Host BD